প্রাণের শহর সুনামগঞ্জ বাসী সবাইকে শুভেচ্ছা জানাই। সুনামগঞ্জ জেলার ধর্মপাশা উপজেলার প্রত্যন্ত অঞ্চল জয়শ্রী ইউনিয়নের একটি গ্রাম সানবাড়ি। সম্প্রতি আমার এক কাকার বাড়ি বেড়ানোর সূত্রে সানবাড়ি পরিদর্শনের সুযোগ পেলাম। সেখানকার এক প্রবীণ ব্যক্তির কাছে জানতে চেয়েছিলাম, সানবাড়ি গ্রামের নামকরণের ইতিহাস। সুনামগঞ্জ সহ সকলের জ্ঞাতার্থে ঘটনাটি আমি এই “প্রাণের শহর সুনামগঞ্জ ” নামক গ্রুপে লিপিবদ্ধ করার ইচ্ছা পোষণ করছি। সানবাড়ি নামকরণের পেছনে রয়েছে এক করুণ কাহিনী।গ্রামের পাশ দিয়ে বয়ে গেছে স্রোতস্মিনী সুরমার এক শাখা। বর্তমানেও এর অস্তিত্ব বিদ্যমান, তবে দেখতে অনেকটা খালের মতো। সেই খাল দিয়ে যাতায়াত করতো বিরাট আকার মারোয়ারি নৌকা। নৌকা ঘাট ছিলো এক জমিদার বাড়ির পাশে।এখানেই এসে ভিড়তো নৌকাগুলো।একদিন এক নৌকায় উঠে বসে জমিদার বাড়ির এক মেয়ে।ঐ মেয়েকে নিয়ে ছেড়ে চলে যায় নৌকাটি। আর পাওয়া যায় নি ঐ মেয়েকে। জমিদার বাড়ির মেয়ে হারানোর বিষয়টি সহজভাবে মেনে নিতে পারেননি জমিদার বাড়ির লোকেরা। জমিদার এর তত্বাবধানে পরে ঐ খালের পাশ দিয়ে বাধানো হয় সান মানে পাকা ঘাট, যাতে আর মারোয়ারি নৌকা ভিড়তে না পারে। সেই সান ঘাটের নামানুসারে এই এলাকা বা গ্রামের নামকরণ হয় সানবাড়ি। এখানে একটি বিদ্যালয় দেখলাম, যেটি শিক্ষা ব্যবস্হার পরিবর্তিত অবস্হার ছোঁয়া বঞ্চিত এখনো। স্থানীয় প্রশাসনের অবহেলার কারণে দু-তিন জন শিক্ষক নিয়েই চলে এই প্রতিষ্ঠানের শিক্ষা কার্যক্রম। শুনে খুব খারাপ লেগেছে। এখানে ঐ লুপ্ত জমিদার বাড়িতে এখন বেশ ঘনবসতি গড়ে উঠেছে। রয়েছে একটি নাম মাত্র স্বাস্থ্য ক্লিনিক।

লিখেছেনঃ দীপ্ত দাস